ডিসিদের চিঠিতে দায়িত্ব বাড়লো ইউপি চেয়ারম্যান-মেম্বারদের

প্রথম ধাপে ৩৭১ ইউনিয়ন পরিষদে (ইউপি) ভোটের তফসিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। কিন্তু হঠাৎ করেই মহামারি করোনা পরিস্থিতি অবনতির দিকে যাওয়ায় নির্ধারিত এই নির্বাচন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা যাচ্ছে না। এ অবস্থায় এক সিদ্ধান্ত দিয়ে জেলা প্রশাসকদের (ডিসি) চিঠিও দিয়েছে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়।

চিঠিতে বলা হয়েছে, পরবর্তী নির্বাচন না হওয়া পর্যন্ত বর্তমান চেয়ারম্যান-মেম্বাররা ইউনিয়ন পরিষদের দায়িত্বে থাকবেন। ২০ এপ্রিল স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ গণমাধ্যমকে বলেন, পরবর্তী নির্বাচন না হওয়া পর্যন্ত বর্তমান চেয়ারম্যান-মেম্বাররা ইউনিয়ন পরিষদের দায়িত্বে থাকবেন। এ বিষয়ে জেলা প্রশাসকদের কাছে নির্দেশনা পাঠানো হয়েছে।

মহামারী করোনা  ভাইরাসের কারণে প্রথম ধাপে অনুষ্ঠিতব্য ৩৭১ ইউপির ভোট ছাড়াও ১১টি পৌরসভা ও লক্ষ্মীপুরের বিতর্কিত এমপি পাপুলের আসনে উপনির্বাচন স্থগিত করা হয়েছে। এসব নির্বাচন ১১ এপ্রিল অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল।কিন্তু গত ১ এপ্রিল এসব নির্বাচন স্থগিত করা হয়। এরপর ৯ এপ্রিল স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়কে ইসি জানায়, নির্ধারিত সময়ে এসব নির্বাচন আয়োজন করা সম্ভব নয়।

উল্লেখ্য যে, ২০০৯ সালের স্থানীয় সরকার (ইউনিয়ন পরিষদ) আইনে ২৯ ধারায় পরিষদের চেয়ারম্যান ও সদস্যদের কার্যকাল বিষয়ে বলা হয়েছে, প্রথম সভা অনুষ্ঠানের তারিখ থেকে ৫ বছর পরিষদের মেয়াদ থাকবে। পরিষদ গঠনের জন্য কোনো সাধারণ নির্বাচন ওই পরিষদের জন্য অনুষ্ঠিত পূর্ববর্তী সাধারণ নির্বাচনের তারিখ হতে ৫ বছর পূর্ণ হওয়ার ১৮০ দিনের মধ্যে অনুষ্ঠিত হবে। দৈব-দুর্বিপাকজনিত বা অন্য কোনো কারণে নির্ধারিত ৫ বছর মেয়াদের মধ্যে নির্বাচন অনুষ্ঠান সম্ভব না হলে সরকার লিখিত আদেশ দ্বারা, নির্বাচন না হওয়া পর্যন্ত বা অনধিক ৯০ দিন পর্যন্ত যা আগে ঘটবে, সংশ্লিষ্ট পরিষদকে কার্যক্রম পরিচালনার জন্য ক্ষমতা দিতে পারে।

Total Page Visits: 85 - Today Page Visits: 1

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *