বদরগঞ্জ সহ রংপুরের ৫ মডেল মসজিদ উদ্বোধন বৃহস্পতিবার

বি. আই. বাধন :

বদরগঞ্জ মডেল মসজিদসহ রংপুরের ৫টিসহ সারাদেশে ৫০টি মডেল মসজিদের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে গণভবন থেকে প্রধান অতিথি হিসেবে ভার্চুয়ালি রংপুরের বদরগঞ্জ, ঢাকা, খুলনা ও সিলেটে সরাসরি সংযুক্ত থাকবেন।

বুধবার (৯ জুন) সকালে এ উপলক্ষে রংপুরের বদরগঞ্জে এক প্রস্তুতিমূলক সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে সরাসরি সংযুক্ত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয়, চারটি মডেল মসজিদ ও সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট অতিথিবৃন্দ।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন রংপুর-২ আসনের এমপি আবুল কালাম মো. আহসানুল হক চৌধুরী ডিউক, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের বিভাগীয় পরিচালক নুরুল ইসলাম, ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের যুগ্ন সচিব রবিউল ইসলাম, রংপুর জেলা প্রশাসক আসিব আহসান, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফজলে রাব্বি সুইট, ইউএনও মেহেদী হাসান, পৌর মেয়র আহাসানুল হক চৌধুরী টুটুল, ভাইস চেয়ারম্যান তাজুল ইসলামসহ ইসলামিক ফাউন্ডেশন ও প্রশাসনের কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

বদরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মেহেদী হাসান বলেন, মডেল মসজিদ উদ্বোধন উপলক্ষে ইতিমধ্যে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। বিশেষ করে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উদ্বোধনের মাহেন্দ্রক্ষণে যাতে প্রযুক্তিগত কোন ধরনের ক্রটি না থাকে সে জন্য আজ রিহার্সেল সম্পন্ন করা হয়েছে।

এমপি আবুল কালাম মো. আহসানুল হক চৌধুরী ডিউক বলেন, ‘একসঙ্গে এত মসজিদ নির্মাণ করা এটা পৃথিবীর ইতিহাসে একটি বিরল দৃষ্টান্ত। বিশেষ করে উত্তরের জেলা রংপুরের বদরগঞ্জ মডেল মসজিদের ভার্চুয়ালি উদ্বোধন করার সিদ্ধান্তে কওমী জননী মানবতার মা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রতি আমাদের কৃতজ্ঞতা।  

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, রংপুর জেলার সিটি কর্পোরেশন এলাকা ছাড়াও সদর উপজেলা, মিঠাপুকুর, পীরগঞ্জ ও বদরগঞ্জের নির্মাণাধীন পাঁচটি মডেল মসজিদ রয়েছে উদ্বোধনের তালিকায়।

উপজেলা পর্যায়ের মসজিদগুলো তিনতলা হলেও রংপুর জেলা শহরের মসজিদটি চারতলাবিশিষ্ট। অনুমোদিত নকশা অনুযায়ী জেলা শহরের প্রতিটি মডেল মসজিদের আয়তন প্রায় ৪০ হাজার বর্গফুট এবং উপজেলার মসজিদগুলোর আয়তন ৩০ হাজার বর্গফুট।

দেশের প্রতিটি জেলা ও উপজেলা মিলে ৫৬০টি মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র নির্মাণ করা হচ্ছে। এর মধ্যে রংপুর বিভাগে ৬৬টি স্থাপন করা হবে। এর ভেতরে রংপুর জেলায় রয়েছে ৯টি মসজিদ। প্রথম পর্যায়ে নির্মাণাধীন মসজিদগুলোর মধ্যে রংপুর বিভাগের ১১টি মসজিদের উদ্বোধন হচ্ছে।

এসব মসজিদে নারী-পুরুষদের আলাদা ওযু-নামাজের ব্যবস্থাসহ মক্তব, গ্রন্থাগার, গবেষণাকেন্দ্র, ইমাম ও হাজিদের প্রশিক্ষণকেন্দ্র, কনফারেন্স রুমসহ আরও অনেক কিছুই থাকবে। পুরো মসজিদ হবে শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত। ইসলামের নামে জঙ্গিবাদ রুখতে ধর্মের প্রকৃত শিক্ষা ছড়িয়ে দেয়াই হবে এর কাজ। আর ইসলাম যে শুধু একটি ধর্ম নয়, বরং পূর্ণাঙ্গ জীবন-বিধান সেই বিশ্বাস ও সংস্কৃতি গড়ে তুলতে এই মসজিদগুলো গড়ে তুলছে সরকার।

২০১৪ সালের নির্বাচনী ইশতেহারে প্রতিটি জেলা ও উপজেলায় একটি করে উন্নত মসজিদ নির্মাণের প্রতিশ্রুতি দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সেই প্রতিশ্রুতি পূরণে সরকার একসঙ্গে ৫৬০টি মসজিদ নির্মাণ করছে। শুরুতে প্রকল্পটি সৌদি সরকারের অর্থায়নে হওয়ার কথা ছিল। পরে সৌদি আরব এ বিষয়ে নীরব থাকায় ধর্ম মন্ত্রণালয় নিজস্ব অর্থায়নে এ প্রকল্পের কাজ শুরু করে। ইতোমধ্যে ৫৬০টি মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের মধ্যে ৪০০টির কাজ শুরু হয়েছে। বিশ্বে এই প্রথম কোনো দেশের সরকার একসঙ্গে ৫৬০টি মসজিদ নির্মাণ করছে।

Total Page Visits: 72 - Today Page Visits: 2

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *